সামান্য কিছু ভুলে আপনি ডেকে আনছেন ডায়াবেটিস

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, ডায়াবেটিস এখন একটি মহামারি রোগ। এই রোগের অত্যধিক বিস্তারের কারণেই সম্প্রতি এমন ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

আমাদের প্রতিনিয়ত কিছু অনিয়ম আর বদভ্যাস এই মহামারি ডায়াবেটিসের প্রবণতাকে আরও বাড়িয়ে তোলে। প্রতিদিনের স্বভাব থেকে বাদ দিন সে সব বদভ্যাস। এমন নিয়ম মানা খুব কঠিন নয় মোটেই, বরং একটু সচেতন হলেই এ সব নিয়ম মানা যায়।

যে অনিয়মগুলো ডায়াবেটিসের প্রবণতাকে বাড়িয়ে তোলে :

১) অনেকক্ষণ না খেয়ে থাকলে ইনসুলিনের কার্যকারিতা কমে রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়ে। নিয়মিত এমন হলে বাড়াবাড়ি হতে পারে। কাজেই সময়ে খাওয়াদাওয়া করুন।

২) দুপুরে ১০-১৫ মিনিট ঘুমিয়ে নিলে যেখানে ক্লান্তি কমে, বিকেলে কাজের উৎসাহ বাড়ে, সেটাই দু’-এক ঘণ্টা পার করে দিলে বিপদ হয়। বাড়ে ডায়াবেটিসের আশঙ্কা।

৩) সুস্থ জীবনের শত্রু হল নাইট ডিউটি। মাত্র বছর খানেক টানা করলে ডায়াবেটিসের আশঙ্কা বাড়ে ১৭ শতাংশ, ৩-৯ বছর করলে ২৩ শতাংশ ও ১০ বছর পেরিয়ে গেলে ৪২ শতাংশের মতো। এর প্রধান কারণ মেলাটোনিন হরমোনের ক্ষরণ কমে যাওয়া, যার প্রভাবে ইনসুলিন ঠিকভাবে কাজ করতে পারে না বলে সমস্যা হয়।

৪) নরম পানীয়তে থাকে কর্ন সিরাপ, যা নিয়মিত খেলে রক্তে ফ্রুকটোজের পরিমাণ বাড়ে। তার হাত ধরে ওজন বেড়ে সূচনা করতে পারে বিপদের। প্যাকেটের ফলের রসেও থাকে চিনি। নিয়মিত খেলে রক্তে সুগারের মাত্রা বাড়তে পারে। কমতে পারে ইনসুলিনের কার্যকারিতা।

৫) রক্তচাপ বেশি থাকলে কফি কম খান। কারণ রক্তচাপ বেশি হলে ডায়াবিটিসের আশঙ্কা এমনিই বাড়ে, তার উপর কফি খাওয়ার ফলে গ্লুকোজের বিপাক ক্রিয়ায় গোলমাল হলে তা আরও বাড়বে।

৬) রক্তচাপ বাড়ানোর মূলে ধূমপানের অবদান অনেক। তার হাত ধরে ডায়াবেটিস হওয়ার ও তার জটিলতা বাড়ার আশঙ্কা থাকে। কাজেই এই অভ্যাসটি ত্যাগ করুন।

৭) নিয়মিত এক ঘণ্টা টানা টিভি দেখলে ডায়াবেটিসের আশঙ্কা বাড়ে প্রায় ৩.৪ শতাংশ। সারাদিন এতে মশগুল থাকলে ওজন ও ভুঁড়ি বাড়ার হাত ধরে আশঙ্কা আরও বেড়ে যায়।

গবেষণায় প্রমাণিত, চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি পান করলে দু’ধরনের ডায়াবেটিসের ঝুঁকি থাকে না। এছাড়া গ্রিন চাও শরীরের রক্তে চিনি ও ইনসুলিনের মাত্রা কমাতে বিশেষ সাহায্য করে।

নিজের সুন্দর জীবনের জন্য একটু সাবধান হোন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!