শিয়া মতাবলম্বী হওয়ায় মদিনায় মায়ের সামনে ছয় বছরের শিশুকে জবাই করে হত্যা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : সৌদি আরবের মদিনায় মায়ের সামনে ছয় বছরের এক শিশুকে জবাই করে হত্যা করেছে এক সুন্নি ব্যক্তি।

বৃহস্পতিবার রাতে দরুদ শুনে শিয়া মতাবলম্বী হওয়ার বিষয়টি টের পেয়ে শিশুটিকে হত্যা করে সে। এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি। খবর ডেইলি মেইলের।

শিশুটির নাম জাকারিয়া আল-জাবের। মায়ের সঙ্গে হজরত মুহাম্মদ (সা.)’র রওজা জিয়ারতের জন্য রওয়া হয়েছিলো সে। পথে তার মা দরুদ শরীফ পাঠ করতেই ট্যাক্সি চালক জানতে চান তিনি শিয়া মুসলমান কিনা? উত্তরে হ্যা বলেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ট্যাক্সি থামিয়ে শিশুকে বের করে এনে ভাঙা কাচ দিয়ে ঘাড় থেকে মাথা আলাদা করে ফেলেন ওই চালক। সেখানেই জ্ঞান হারান জাবেরের মা।

হত্যাকাণ্ডের পর শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়ে সৌদি আরবে শিয়া সম্প্রদায়। শিশুটির পরিবারের কাছে এসে সহানুভূতি জানান দেশটিতে নানা নির্যাতনের শিকার হওয়া শিয়ারা।

ডেইলি মেইলকে শিয়া সম্প্রদায়ের এক নেতা বলেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে সৌদিতে চলা নিপীড়নেরই অংশ এটি। এখানে কর্তৃপক্ষ শিয়াদের কোন প্রকার সুরক্ষা দিচ্ছে না।’

ওয়াশিংটন ভিত্তিক শিয়া মানবাধিকার সংস্থা আসাপ এক বিবৃতিতে এ ঘটনার বিচার দাবি করেছে। সংস্থাটির বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সৌদি আরবের শিয়া সম্প্রদায় এখনও নানা হামলার শিকার হচ্ছে। পরিস্থিতির উন্নতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কোন উদ্যোগ নিচ্ছে না। এমন নৃশংসভাবে জাবেরের হত্যাকাণ্ডের অবশ্যই সুরাহা হওয়া উচিত।’

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook100k
YouTube
error: Content is protected !!