লন্ডনে শুরু হলো নবম বাংলাদেশ বইমেলা ও সাহিত্য সাংস্কৃতিক উৎসব


মুহাম্মদ শাহেদ রাহমান, লন্ডন : লন্ডনে নবম বাংলাদেশ বইমেলা ও সাহিত্য সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ এমপি এবং যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর রাষ্ট্রদূত সাঈদা মুনা তাসনিম।

রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯) পূর্বলন্ডনের একটি হলে সম্মিলিত সাহিত্য সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্যের উদ্দোগে দুইদিন ব্যাপি অনুষ্ঠিত বইমেলায় নবীন- প্রবীন লেখক, প্রকাশক ও সংস্কৃতি প্রেমিদের মিলনমেলা মনে করিয়ে দেয় বিলেতে যেন একখন্ড বাংলাদেশ; বললেন বাংলাদেশ থেকে এ বইমেলায় আসা তরুণ লেখক ‘প্রাচ্য থেকে প্রাশ্চাত্য ‘ গ্রন্থের প্রণেতা রাহাত তরফদার।

তিনি আরো বলেন- লন্ডনে বই মেলার এই পরিবেশ দেখে আমি আজ আনন্দিত ও গর্ববোধ করছি আমার প্রিয় মাতৃভূমির বিলেত প্রবাসীদের নিয়ে । আবার চিন্তায় আছি আমাদের প্রবাসী আগামী প্রজন্মকে নিয়ে । আমাদের এ দিকে সুদৃষ্টি দিতে হব, বইমেলার মাধ্যমে বর্তমান – আগামী প্রজন্মের মাঝে সেতু বন্ধন গড়ে তুলতে হবে ।

বইমেলায় আসা প্রবীন লেখক সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসন বলেন- বইমেলায় আসি মনের টানে। বই সংগ্রহ করি বই পডি, বিশেষ করে নবীন লেখকদের বই পেলে মনোযোগ সহকারে পড়ার চেষ্টা করি, নবীনদের প্রেরণা দেই।

লন্ডন বইমেলা ঘুরে ঘুরে দেখেন তরুন ব্যবসায়ী শিক্ষানুরাগী তরাজ উদ্দিন , সঙ্গে ছিলেন তার বন্ধু ফারুক আহমদ, কবি মিজানুর রহমান মীরু, গবেষক লেখক আমিরুল হক বাবলু, সৈয়দ সামী আরো অনেকে।

স্টলে ঘুরে ঘুরে বই দেখে তরাজ উদ্দিন একজন স্টল মালিকের প্রশ্নের উত্তরে বলেন- এখন আর আগের মতো বই পড়ার সময় হয়ে উঠেনা, তবুও কিছু বই কিনবো , কিনে রাখবো সুযোগ করে পড়বো।

দুইদিন ব্যাপী শুরু হওয়া বইমেলায় লেখক পাঠক সমাবেশে চলে আড্ডা, অন্য হলে কবিতা আবৃত্তি , সাংস্কৃতিক পর্ব মেলায় আগতদের জন্য বাড়তি বিনোদন।

লন্ডন, ঢাকা ও সিলেট থেকে আসা অনেকগুলো প্রকাশনার স্টলের এ বইমেলায় অংশগ্রহণ চোখে পড়ার মতো।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!