ভ্রমণ ভিসা দেবে সৌদি আরব : আবেদন শুরু শনিবার থেকে

ব্রিটিশ বাংলা নিউজ ডেস্ক: শুক্রবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯: তেলের বিকল্প হিসেবে দেশের অর্থনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করতে চায় সৌদি আরব। এর অংশ হিসেবে বিদেশিদের ভ্রমণ ভিসা দেওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে বসেছে দেশটি। শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) থেকে এর আবেদন শুরু হবে।

শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯) দেশের প্রাচীন শহর আদ-দিরিয়্যাহতে একটি অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেয় সৌদি কমিশন ফর ট্যুরিজম অ্যান্ড ন্যাশনাল হেরিটেজ (এসসিটিএইচ)। যে শহরটি বর্তমানে শীর্ষস্থানীয় একটি পর্যটন কেন্দ্র।

তেল ছাড়া দেশের অর্থনীতিকে বৈচিত্রভাবে সমৃদ্ধ করতে রক্ষণশীলতা থেকে বেরিয়ে এসে প্রথমবারের মতো এ উদ্যোগ সৌদি কর্তৃপক্ষের। অবশ্য অনেক বিপত্তি এড়িয়ে চলতি বছরের মার্চেই সৌদি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পেয়েছিল এই পর্যটন ভিসা।

বলা হচ্ছে, তেল রপ্তানিতে সমৃদ্ধ অর্থনীতিকে বহুমুখীকরণ এবং বিশালতা দেওয়ার জন্য সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের ভিশন-২০৩০ সংস্কার কর্মসূচির অন্যতম অংশীদার হতে যাচ্ছে দেশের আন্তর্জাতিক পর্যটন ভিসা। কেননা, গত কয়েক বছর ধরে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের ব্যবসায় সৌদি ভালো সুবিধা করতে পারছে না। আয় কমে গেছে। তাই আয়ের বিকল্প মাধ্যম হিসেবে পর্যটনখাত শীর্ষে।

ঘোষণা দিয়ে এসসিটিএইচ বলে, বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র পরিদর্শনসহ দেশে আয়োজিত বিভিন্ন খেলাধুলা বা অনুষ্ঠানে যাতে বিদেশিরা অংশ নিতে পারেন, সেজন্য বিশ্বের ৪৯টি দেশকে পর্যটন ভিসা দেওয়া হবে। এর মধ্যে ৩৮টি দেশ ইউরোপের। সাতটি এশিয়ার। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের পর্যটকরা নতুন এ ভিসার আবেদন করতে পারবেন।

সৌদি পর্যটন বিভাগের প্রধান আহমেদ আল-খতিব বলেছেন, বিদেশি নারীদের জন্য কঠোর পোশাকের কোডটিও সহজ করে দেবে সৌদি। তাদের এমন পোশাক অনুমোদন দেওয়া হবে, যেটা সৌদি নারীদের এখনও বাধ্যতামূলকভাবে পরানো হয়। তবে বিদেশি নারীদের আমরা অনুরোধ করব, যেনো তারা অবশ্যই ‘বিনয়ী পোশাক’ পরেন।

আরব নিউজ বলছে, সৌদির ভ্রমণ ভিসার জন্য খরচ পড়বে প্রায় ৩০০ রিয়াল বা ৮০ ডলার। এছাড়া ভ্রমণ বীমার জন্য অতিরিক্ত খরচ পড়তে পারে আরও ১৪০ সৌদি রিয়াল।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!