বাস চাপায় হত্যাকান্ড চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যাওয়া হলনা ফারুকের

সিলেট প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে দ্রুতগামী বাস চাপায় ফারুক মিয়া (৫০) নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।, বৃহস্পতিবার রাতে ময়না তদন্তশেষে নিহতের মরদেহ জেলা সদও হাসপাতাল হতে তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়। নিহত ফারুক জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পূর্ব পাগলা ইউনিয়নের বেতকোণা গ্রামের মকবুল আলীর ছেলে ও পেশায় ফেরিওয়ালা।

শুক্রবার সুনামগঞ্জের জয়কলাস হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা নিহতের পরিবারের বরাতে জানান, উপজেলার সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি ফারুক মিয়া কৈতক হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে শ্বশুরালয় থেকে বৃহস্পতিবার সকালে বের হয়ে আসনে।

সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের ছাতকের রাউলি এলাকায় সড়ক পারাপারের সময় সুনামগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী একটি দ্রতগতির বাস (সিলেট জ-১১৮৯) তাকে চাঁপা দিলে তিনি ঘটনাস্থলেই মর্মান্তিকভাবে মাথঅ থেতলে অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণের মুখে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

দ্রত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে ছাতকের জাতুয়া এলাকায় পৌছে ঘাতক চালক,হেলপার,যাত্রীরাও সড়কের পাশে বাস ফেলে রেখে পালিয়ে যান।, সুনামগঞ্জ জয়কলস হাইওয়ে পুলিশ গাড়িটি জব্দ করে এবং ছাতক থানা পুলিশ নিহতের লাশ জেলা সদর মর্গে প্রেণে করেন।, শুক্রবার ছাতক থানার ওসি মো. মোস্তফা কামাল বলেন, যেহেতু বাসটি জব্দ করা হয়েছে সেক্ষেত্রে খুব দ্রুত সময়ে ফারুকের ঘাতক চালক ও হেলপারকে শনাক্ত করেই নিয়মিত মামলার দায়েরের পর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!