পাকিস্তানকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা

আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। গত ডিসেম্বরে ঘরের মাঠে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেছিল তারা। আট মাস পর ভুটানে একই আসরে খেলতে নেমে শুরুটা দারুণ করেছে লাল-সবুজের দল। প্রতিপক্ষ পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিয়েছে মারিয়া-মনিকারা। তাদের ১৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে তারা। 

ভুটানের রাজধানী থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বাংলাদেশের মেয়েদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি পাকিস্তানের মেয়েরা। প্রথমার্ধে ছয় গোলে এগিয়ে ছিল তারা, দ্বিতীয়ার্ধেও আট গোল করে আসরের গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

বাংলাদেশের জয়ে শামসুন্নাহার ৫টি গোল করে। এ ছাড়া তহুরা খাতুন, সাজেদা খাতুন ও আনাই মোগিনি দুটি করে গোল করে। আর মনিকা চাকমা, মারিয়া মাণ্ডা ও আঁখি খাতুন করে একটি করে গোল।

গত দুই বছর ধরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ম্যাচ একসঙ্গে খেলায় তাদের মধ্যে ভালো বোঝাপড়া তৈরি হয়েছে। মারিয়া মান্ডা, গোলরক্ষক মাহমুদা, আনুচিং মোগিনি, আঁখি খাতুন ও মনিকা চাকমার মতো খেলোয়াড়রা একসঙ্গে উত্তর কোরিয়া, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে ২০১৭ সালের এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে খেলেছে, যারা দলের মূল শক্তি হিসেবে বিবেচিত। তাদের অসাধারণ নৈপুণ্যে এই দল এই দারুণ জয় পেয়েছে।

এই পাকিস্তানের বিপক্ষে এর আগে মেয়েদের জাতীয় দলও দারুণ সাফল্য পেয়েছিল। ২০১০ সালে ঢাকায় এসএ গেমসে অনূর্ধ্ব-২৩ দল ২-০ গোলে হারায় এবং একই বছর প্রথম নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ২-০ গোলে জিতেছিল বাংলাদেশ।

সম্প্রতি বাংলাদেশের মেয়েরা দারুণ ফুটবল খেলছে। ২০১৪ সালে নেপালে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম শিরোপা জিতেছিল। এরপর তাজিকিস্তানে একই টুর্নামেন্টে শিরোপা জেতে। এর পর ঢাকায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ বাছাইপর্বে, গত বছর ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে এবং গত এপ্রিলে হংকংয়ে চার জাতি জকি কাপে শিরোপা জিতেছিল তারা।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!