জামালপুরে আরবি শিক্ষকের হাতে ৬শিশু শিক্ষার্থী বলৎকারের শিকার

নিউজ ডেস্ক : জামালপুরের মাদারগঞ্জে মুসতানির ইন্টারন্যাশনাল একাডেমি নামে এক মাদ্রাসায় বলৎকারের শিকার হয়েছে অন্তত ৬শিশু শিক্ষার্থী। ঘটনা প্রকাশ হওয়ার পর পালিয়েছে অভিযুক্ত আরবি শিক্ষক মাওলানা ইয়াকুব আলী খোকন।

আভিভাবকদের চাপের মুখে শনিবার আবাসিক শিক্ষার্থীদের ছুটি দিয়ে মাদ্রাসার তালাবদ্ধ করে রেখেছে কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, মাদারগঞ্জ উপজেলা চত্ত্বর এলাকায় ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত মুসতানির ইন্টারন্যাশনাল একাডেমির ২৬জন আবাসিক শিক্ষার্থীসহ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী পড়ালেখা করে। শনিবার আভিভাবকরা মাদ্রাসায় গেলে আরবি শিক্ষক ইয়াকুব আলী খোকন কর্তৃক শিক্ষার্থীদের বলৎকারে ঘটনা প্রকাশ হয়।

ওই মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণির এক আবাসিক শিক্ষার্থী জানায়, মাদ্রাসার ছাত্রবাসের পাশেই রাতে ঘুমাতেন শিক্ষক ইয়াকুব আলী খোকন। তার অসভ্য আচরণের ব্যাপারে শিক্ষার্থীরা অন্য শিক্ষকদের কাছে অভিযোগও করেছে। তারপরও ইয়াকুব আলী ছাত্রদের সাথে কুকর্ম চালিয়ে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আবাসিক শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জানান, গত ৬-৭মাস ধরে ইয়াকুব আলী তাদের সন্তানদের নির্যাতন করে আসছে। ভয়ে শিশু সন্তানরা কিছু বলেনি। শনিবার একজন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার মাকে ঘটনা বলে দেয়। ঘটানার প্রকাশের পর প্রতিষ্ঠানের প্রধান মীর ছানাউল্লাহ্ অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে মাদারগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমিনুল ইসলাম জানান, তিনি ওই মাদ্রাসায় পুলিশ পাঠিয়েছেন। তারা এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!