কুমিল্লায় প্রবাসীর স্ত্রীকে নিয়ে যুবলীগ নেতা উধাও, দল থেকে বহিষ্কার

আবুল কালাম আজাদ,কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ২নং আকুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক রজ্বব হোসেন রাজু নিজের স্ত্রী-সন্তান থাকা স্বত্বেও পাশের গ্রামের ৩ সন্তানের মাকে নিয়ে পালিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই নিয়ে এলাকায় যুবলীগ নেতা রজ্বব হোসেন রাজুর (৩৮) বিরোদ্ধে ক্ষোভ সৃষ্টি হচ্ছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শ্রীকাইল ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী নাছির উদ্দিনের স্ত্রী রিতা আক্তারের (৩৬) সাথে দীর্গদিন ধরে পরকিয়া প্রেমের সম্পর্কে ছিল। ঈদুল ফিতরের পরের দিন ৬ মে রাতে পরকীয়ার টানে উভয়ে সন্তান ও পরিবার রেখে পালিয়ে যায় ।

সিঙ্গাপুর প্রবাসীর নাছির উদ্দিনের ওই স্ত্রীর মোহাম্মদপুর আইডিয়াল কিন্ডার গার্টেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত ছিলেন । প্রধান শিক্ষিকার এই রকম ঘটনার পর ঈদের পর থেকে এখনো কিন্ডার গার্টেন স্কুলটি বন্ধ রয়েছে। এতে শতাধিক শিক্ষার্থীদের নিয়ে অভিভাবকরা উদ্ধিগ্ন হয়ে পড়েছে ।

প্রতিবেশীদের নিকট থেকে জানা যায়, রিতা আক্তারের বড় মেয়ে এইচ এস সি ভর্তি হয়েছেন এবং ঈদের পর তার বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও তার মায়ে কারনে এখন বিয়ে ভেঙ্গে গেছে। তার পরিবারে ২ মেয়ে ১ ছেলে সন্তান রয়েছে।

অপর দিকে আকুবপুর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামের রজ্বব হোসেন রাজুর পরিবারেও তার স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। তার প্রথম স্ত্রী আত্মহত্যা করে মারা যান এবং এক মেয়ে আছে বিবাহিতা। ২য় স্ত্রীর পরিবারে ২ ছেলে সন্তান রয়েছে। বর্তমানে তার পরকিয়া করে পালিয়ে রিতা আক্তারকে বিয়ে করে ৩য় স্ত্রীর মর্যাদা দিতে যাচ্ছেন বলে সূত্রটি আরো জানা যায়।

ইতিমধ্যে গত ৬ মে উল্লেখিত তারিখে বাঙ্গরা বাজার থানা যুবলীগের আহব্বায়ক নাইউম খান ও সদস্য সচিব আব্দুল্লাহ নজরুল তাদের দলীয় প্যাডে আকুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ কমিটির আহব্বায়ক পদ থেকে রজ্বব হোসেন রাজুকে সাময়িক বহিস্কার করেছেন।

এলাকায় যুবলীগ নেতা রাজুর বিরোদ্ধে সাধারণ মানুষ একাদিক অভিযোগ করে বলেন সে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে বিদ্যুেৎতের নতুন মিটারের নামে গ্রহকদের নিকট থেকে অর্থ আদায়, নিরহ মানুষদের বিরুদ্ধে মামলায় ভয় দেখি অর্থ আদায়সহ নানা বিতর্কিত কর্মকান্ডের সাথে সে জড়িত বলে জানান। তার ভয়ে এলাকার মানুষ আতংকে থাকেন।

ঘোড়াশাল গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ সফিকুল ইসলাম বলেন: তার বিরোদ্ধে অভিযোগ সত্য, সে নিজে বিবাহিত হয়ে অন্যের স্ত্রী নিয়ে পালিয়ে যাওয়া অত্যান্ত নিন্দনীয়, তাকে পূর্বেও আমি সাবধান হতে পরামর্শ দিয়ে ছিলাম, কিন্তু সে একের পর এক দুর্নাম করে আওয়ামী যুবলীগ ও ঘোড়াশাল গ্রামের মর্যাদা ক্ষুন্ন করেছেন। তবে তার নানা কর্মকন্ডে বাঙ্গরা বাজার থানা যুবলীগ গত ০৬/০৬/২০১৯ইং তারিখে আকুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহব্বায়ক কমিটি থেকে তার রজ্বব হোসেন রাজুকে অব্যাহতি দেওয়া হযেছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook
YouTube
YouTube
error: Content is protected !!